আড়াইহাজারের হাফেজ আবু রায়হানের বিশ্বজয়

- সফুরউদ্দিন প্রভাত

---

ফের বিশ্বমঞ্চে উজ্জ্বল হলো বাংলাদেশের নাম। সেনেগালে অনুষ্ঠিত এগারোতম আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতা-২০২৪ এর আসরে প্রথম স্থান অর্জন করেছে নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার বাংলাদেশি প্রতিযোগী হাফেজ আবু রায়হান। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানিয়েছে আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সংস্থা বাংলাদেশ।

সোমবার বিকেলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তির বরাত দিয়ে সেনেগাল থেকে তার সফরসঙ্গী মুফতি আব্দুল কাইয়ুম জানান, হাফেজ আবু রায়হান নারায়নগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার হাইজাদী ইউনিয়নে অবস্থিত মুফতি আব্দুল কাইয়ুম কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত বল্লভদী আল ইসলাহ একাডেমী ইন্টার ন্যাশনাল মাদরাসার শিক্ষার্থী ছিলো। সে গত ২৪ ডিসেম্বর রাজধানীর লালবাগ শাহী মসজিদে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতার বাছাইপর্ব থেকে তাকে নির্বাচিত করে আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সংস্থা বাংলাদেশ। এরপর সংস্থাটির মহাসচিব শায়েখ সাদ সাইফুল্লাহ মাদানী থেকে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে। প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়ার জন্য গত ২ এপ্রিল বাংলাদেশ ত্যাগ করে সে। বর্তমানে সেনেগালে অবস্থান করছে। সেনেগালের রাজধানী ডাকারে অনুষ্ঠিত এগারোতম বিশ্ব কোরআন প্রতিযোগিতার আসরে বিশ্বের উল্লেখযোগ্য ২৮টি দেশের প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করে। রোববার (৭ এপ্রিল) স্থানীয় সময় রাত দশটায় অনুষ্ঠিত পুরস্কার বিতরণী ও সমাপনী অনুষ্ঠানে চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা করা হয়। এতে প্রথম স্থান অর্জন করে বাংলাদেশের হাফেজ আবু রায়হান। প্রথম পুরস্কার হিসেবে ২০ হাজার ইউএস ডলার পাবে রায়হান। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় এই পুরস্কার মূল্য প্রায় ২১ লক্ষ ৯৬ হাজার টাকা। বাংলাদেশি প্রতিযোগী হাফেজ আবু রায়হানকে পুরস্কার হিসেবে নগদ অর্থসহ সম্মাননা স্মারক ও সনদপত্র তুলে দেন আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতার প্রধান ড. শায়েখ আব্দুল মালিক নিয়াস।

অভাব আর দারিদ্র্য দাবিয়ে রাখতে পারেনি রায়হানকে
২০০৬ সালের ১৫ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার উপজেলার হাইজাদী ইউনিয়নের উদয়দী গ্রামের এক দ্ররিদ্র মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করে আবু রায়হান। তার পিতা মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ চা বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করেন। অভাব অনটনের মাঝেও তিনি ছেলেকে ইসলামী শিক্ষায় শিক্ষিত করার জন্য ২০১৩ সালে ভর্তি করেন বল্লভদী আল ইসলাহ একাডেমী ইন্টার ন্যাশনাল মাদরাসায়। মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা মুফতি আবদুল কাইয়ুমের কাছে তালিম নেয় রায়হান। মুফতী আব্দুল কাইয়ুম নিজের সন্তানের মত নিজের কাছে রেখে গড়ে তোলেন। মাত্র আট বছর বয়সে আবু রায়হান নিজেকে হাফেজ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেন। তার কোরআন পড়ার সুমধুর কণ্ঠস্বর সবাইকে মুগ্ধ করে। ২০১৬ সালের রমজানে টিভি চ্যানেল আরটিভির হেফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে আবু রায়হান। এরপরই বদলে যেতে শুরু করে এ হাফেজের জীবন। ২০১৬ সালের মে মাসে কাতারের দোহায় তিজান আন নূর ইন্টারন্যাশনাল হিফজুল কোরআন প্রতিযোগীতায় হাফেজ আবু রায়হান প্রথমবারের মত অংশগ্রহণ করে। সেখানে বিশ্বের ৫০টি দেশে সাথে প্রতিদ্ব›দ্বীতা করে ওই বছর সে চতুর্থ স্থান অর্জন করে দেশের মুখ উজ্জ্বল করে। পরবর্তীতে শিশু ক্বারী হিসেবে খ্যাতি পাওয়া হাফেজ আবু রায়হান ২০১৮ সালে কাতারে অনুষ্ঠিত টেলিভিশন ভিত্তিক রিয়েলিটিশো তিজানুন নূর তথা জিম টিভিতে আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অর্জন করার গৌরব অর্জন করেছিল। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তার। একের পর এক সাফল্য এনে দেয় তাকে।

অভিনন্দনে ভাসছেন আবু রায়হান
হাফেজ আবু রায়হানের এই অর্জনে তাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন জাতীয় সংসদের হুইপ ও নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের (আড়াইহাজার) আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু। তিনি এ বিজয়কে সমগ্র বাংলাদেশের মানুষের বিজয় বলে উল্লেখ করেন তিনি। এছাড়াও আড়াইহাজার উপজেলা লেডিস ক্লাবের সভাপতি ডা. সায়মা আফরোজ ইভা, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আলোর পথযাত্রী পাঠাগার, বাঁচবো বাঁচাবো সমাজসেবা সংগঠনসহ বিভিন্ন ইসলামী সংগঠন তাকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

প্রকাশকাল: মঙ্গলবার, ৯ এপ্রিল ২০২৪, ১০:০৮ এএম   ▪   হালনাগাদ: মঙ্গলবার, ৯ এপ্রিল ২০২৪, ১০:২৪ এএম   ▪   পঠিত: ৪৬৫

পাঠকের মতামত



আর্কাইভ